1. Don.35gp@gmail.com : Editor Washington : Editor Washington
  2. masudsangbad@gmail.com : Dewan Arshad Ali Bejoy : Dewan Arshad Ali Bejoy
  3. jmitsolution24@gmail.com : Nargis Parvin : Nargis Parvin
  4. rafiqulmamun@yahoo.com : Rafiqul Mamun : Rafiqul Mamun
  5. rajoirnews@gmail.com : Subir Kashmir Pereira : Subir Kashmir Pereira
  6. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
  7. rafiqulislamakash@yahoo.it : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  8. sheikhjuned1982@gmail.com : Sheikh Juned : Sheikh Juned
নিউইয়র্কে জঙ্গি হামলায় দণ্ডিত বাংলাদেশি অভিবাসী আকায়েদের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান - Washington Sangbad || washington shangbad || Online News portal
শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

নিউইয়র্কে জঙ্গি হামলায় দণ্ডিত বাংলাদেশি অভিবাসী আকায়েদের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৮২ জন সংবাদটি পড়েছেন।
আকায়েদ উল্লাহ ( ফাইল ফটো )

হাকিকুল ইসলাম খোকন যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি : নিউইয়র্কে জঙ্গি হামলায় দণ্ডিত বাংলাদেশী অভিবাসী আকায়েদ উল্লাহর বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আদালত। আকায়েদ তার বক্তব্য নতুন করে তুলে ধরে শাস্তি কমানোর চেষ্টা করেছিলেন। তার পরিবর্তিত বক্তব্য মিথ্যা উল্লেখ করে তা প্রত্যাখ্যান করেন বিচারক রিচার্ড সুলিভান।

আদালত বলেছেন, বিচারকদের দেওয়া দণ্ড ঠিক আছে। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে বুকে পাইপবোমা বেঁধে নিউইয়র্ক টাইমস স্কয়ারের নিকটবর্তী ব্যস্ততম বাস টার্মিনালে বিস্টেম্ফারণ ঘটান আকায়েদ। বিস্ফোরণে তিনিসহ চারজন আহত হন। পরে তাকে আহত অবস্থায় গ্রেপ্তার করা হয়। ২০১৮ সালে নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের আদালতে আকায়েদের বিচার হয়। বিচারে সংঘবদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠীর হয়ে তার কাজ করার বিষয়টি উঠে আসে। এছাড়া পুলিশের কাছে তার দেওয়া স্বীকারোক্তি ও ফেসবুকে বিদ্বেষমূলক নানা পোস্ট বিচারে উঠে আসে। জুরি বোর্ড আকায়েদকে ৩০ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন।তবে এখন আকায়েদ ভিন্ন কথা বলছেন। দণ্ড চ্যালেঞ্জ করে তিনি সম্প্রতি আদালতে দাবি করেন, তিনি ইসলামিক স্টেটের (আইএস) হয়ে জঙ্গি কার্যক্রম চালাননি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মধ্যপ্রাচ্যে বোমা ফেলবেন- এমন কথায় তিনি ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন। ট্রাম্পের ওপর বিরক্ত হয়ে তিনি বোমাবাজি করেছেন। গ্রেপ্তারের পর পুলিশকে দেওয়া স্বীকারোক্তি থেকেও সরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছেন আকায়েদ।

আকায়েদের এই পরিবর্তিত বক্তব্য গত ৩১ ডিসেম্বর প্রত্যাখ্যান করেছেন বিচারক রিচার্ড সুলিভান। বিচারক বলেছেন, আইএসের একটি ভিডিও দেখে আকায়েদ অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন। আর তাদের নির্দেশ পালন করেছেন নিজে বোমাবাজি করে। তা ছাড়া আকায়েদের ফেসবুক পোস্টসহ অন্যান্য গতিবিধি তার দাবিকে সমর্থন করে না। ফলে তাকে দেওয়া জুরি বোর্ডের দণ্ড ঠিকই আছে। গত সোমবার প্রকাশিত নথিতে দেখা যায়, জুরি বোর্ড রায় ঘোষণার পরই আকায়েদ চিৎকার করে আইএসের অনুসারী নন বলে দাবি করেন।

চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার সন্তান আকায়েদ। পারিবারিক অভিবাসনে যুক্তরাষ্ট্রে আসেন তিনি। পরিবারের সঙ্গে ব্রুকলিনে থাকতেন। গ্রেপ্তারের পর জিজ্ঞাসাবাদে আকায়েদ স্বীকার করেছিলেন, তিনি আইএসের জন্য বোমা হামলা করেন।

আকায়েদের হামলার ঘটনার পর সে সময়কার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পারিবারিক অভিবাসন বন্ধ করার জন্য তার উদাহরণ তুলে ধরেছিলেন। ওই হামলাকে যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসন নীতির ফলাফল হিসেবে আখ্যা দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

অভিবাসন নীতিতে আত্মীয়স্বজনের বদৌলতে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের সুযোগ রয়েছে। ওই হামলাকে কেন্দ্র করে ট্রাম্প কংগ্রেসকে সেই সুযোগ পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Developed by : JM IT SOLUTION