1. Don.35gp@gmail.com : Editor Washington : Editor Washington
  2. masudsangbad@gmail.com : Dewan Arshad Ali Bejoy : Dewan Arshad Ali Bejoy
  3. jmitsolution24@gmail.com : Nargis Parvin : Nargis Parvin
  4. rafiqulmamun@yahoo.com : Rafiqul Mamun : Rafiqul Mamun
  5. rajoirnews@gmail.com : Subir Kashmir Pereira : Subir Kashmir Pereira
  6. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
  7. rafiqulislamakash@yahoo.it : Rafiqul Islam : Rafiqul Islam
  8. sheikhjuned1982@gmail.com : Sheikh Juned : Sheikh Juned
ছাত্র ইউনিয়ন আমার প্রথম প্রেম! - Washington Sangbad || washington shangbad || Online News portal
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
৭মে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও আওয়ামী পরিবারের বিবৃতি দেশে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্ত : আইইডিসিআর কে পাবেন ‘জানাডু ২.০’ বাড়িটি -বিল না মেলিন্ডা ? নিউইয়র্কে বাংলাদেশি আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল অনুষ্টিত স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী অনুপ ভট্টাচার্যর মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের শোক স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী অনুপ ভট্টাচার্যর মৃত্যুতে জাতীয় মানবাধিকার সমিতির শোক সাবেক প্রেমিকার কারণেই সংসার ভাঙল বিল গেটসের ! আব্দুস সামাদ আজাদের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে ইউকেবিডি টিভির আলোচনা অনুষ্টান আন্তর্জাতিক সংস্থা গঠনের লক্ষ্যে ২৫টি দেশের শতাধিক বাঙালি বৌদ্ধদের ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেন বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস

ছাত্র ইউনিয়ন আমার প্রথম প্রেম!

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৬৯ জন সংবাদটি পড়েছেন।
লেখক : আতিকুল হক খান

ছাত্র ইউনিয়ন আমার প্রথম প্রেম। ছাত্র জীবনটায় কঠোর বিধিনিষেধ ছিল আমার জীবনের ডানে বামে।

ছোট বেলায় বাবা হারা হলাম। সেই শুরু।
সমাজে-পরিবারে-আত্নীয়-স্বজনের মধ্যে দেখতে শুরু করলাম শ্রেনি বৈষম্য ভেদ ভেদাভেদ।

শিক্ষা ক্ষেত্রেও বৈষম্য ক্যাডেট,প্রি-ক্যাডেট, কিন্ডারগার্টেন, সরকারি প্রাইমারি স্কুল, হাই
স্কুল, জিলা স্কুল, নানা ব্যাবস্হা। এভাবেই শ্রেনি বৈষম্য, দৃষ্টির তারতম্য, দেখা বোঝা শেখা।
শিক্ষার নেই নীতি। এ-ই শিক্ষা নিয়ে
কে নীতিবান হবে? এসব জটিলতায় পড়ে আমলা না হয়ে কামলার ভবিষ্যৎ বরণ করে নিলাম।

এরপর ছোটদের রাজনীতি-অর্থনীতি-যে
গল্পের শেষ নেই। মানুষ সমাজ রাষ্ট্র। বিজ্বানের কত কিছু। কালবেলা। কাল পুরুষ। দৌড়। আকাশ বাড়িয়ে দাও। মা।
ইস্পাত। নন্দীত নরকে। দোজখের ওম।চিলে কোঠার শিপাই। আরও কত কত বই পড়া শেষ।
বড় ভাই বোনদের একটা প্রভাব তো ছিলই।
তারাও বৈষম্য হাড়ে হাড়ে টের পেত চলতে
ফিরতে।

খেলাঘরে, খেলাধূলায়, ছবি আঁকায়, ক্রিয়েটিভ নানা কাজে আমি বেশ দক্ষ হয়ে উঠলাম। যেখানেই যাই, বেশ দাম আমার। ও বোঝে ভালো, পারে ভালো, খেলে ভালো ভদ্র,বিনয়ী, সাহসী, হাতের লেখা সুন্দর নেতৃত্বের গুণাবলী আছে, মানেও সবাই।

আমাকে কেউ ছাত্র ইউনিয়ন বুঝায়নি করতেও বলেনি। আমি আমার জীবন থেকে শিখে দেখে বুঝে শুনে,
ওকে ভালোবেসেছি। তাই আমার প্রেয়সী আমাকে কি দিল না দিল এ নিয়ে কোন আক্ষেপ নেই।
যারা হিসেব কোষে অংক করে প্রাক্তন ধরে চাঁদা তুলে, ভালো থাকবার আঁশে আশিক হয়েছিলেন তাদের আজ মহা দূর্দিন। ছটফটানিতে অস্হির। হাহাকার, ফটকাবাজী শেষ। দালালীতে আত্নৎসর্গ
করতে দেখছি।

আমার প্রথম প্রেম আমাকে যা শিখিয়েছে এ আমি অক্সফোর্ডে গিয়েও শিখতে পারতাম না।
“আমি অকৃতি অধম বলেও তুমি
কম কিছু মোরে দাওনি।
যা দিয়েছো মোরে অযোগ্য ভাবিয়া
কেড়ে তো কিছু নাওনি “।

অনেক মনুষ্য প্রেমের পয়গাম এসেছে। শ্রদ্ধা নিয়ে শুনেছি, পদের জন্যে, পিঠে প্রেয়সীর
নাম! ফিরিয়ে দিয়েছি।
আবার
আমার অনেক সহযোদ্ধাদের দেখেছি পদ নিয়ে প্রিয়তমা সন্ধানে নিজের ঘরেই টেন্ডার বাজী করতে। ছিঃ ছিঃ কি অন্যায়
কি জঘন্ন।

যেমন গুড় ঢেলেছে আমার পরিবার, তেমনি মিষ্টি হয়েছে আমার জীবন। এটাই বিজ্ঞান। পোয়াতী মাকে স্বাস্থ্য সম্মত,পুষ্টি গুন সমৃদ্ধ খাবার না খাওয়ালে ময়নাটা সুন্দর বুদ্ধিমান হবে কি করে ? পাপ পূণ্যে কারো ইচ্ছা অনিচ্ছায় এসব নির্ধারন হয়না। এটাই বিজ্ঞান কথা।

এ-ই ছিল আমার শিক্ষা।
আমি জানতাম বিশ্বাস করতাম এ-ই অসভ্যতার দেশে হিতাহিত বিচার করার লোকটিও অসভ্য। ইতোমধ্যে আমি
বাংলাদেশের মধ্যবিও শ্রেনির বিকাশ পড়ে
দেখলাম একটা ভঙ্গুর ডিগবাজ গোষ্ঠী এর নেতৃত্বে! সোভিয়েত আমলে দেখেছি
সর্দি-জ্বর হলেই মস্কো !! জাতীয় বি-জাতীয় লোক জন এ পার্টিতে । বই পুস্তক ড.রেট,
ছাত্র বৃওি কি রমরমা অবস্থা।

২০১০ বিপ্লব। সরল ঘোষনা । দলে ঘটছে নানা মতলববাজদের তেলেসমাতি !! সি. আই. এর এজেন্ট দলে !! নো প্রবলেম !! তাই কি হয় লিডার। বাঙালী হয়েও চিনলেন না বাঙালী সহযোদ্ধা সহপাঠী। থাপ থুপ দিয়ে কি বিপ্লব হয়! আপনাকে হারানো আজো রহস্যাবৃতই রয়ে গেলো। ভোগের দুনিয়া এতটাই নির্মম !! ১৯৮৬-১৯৯১ ডিগবাজি দলবাজি সংখ্যা লঘু আরাফাতের ভাই চলো আমরা আমাদের ঠিকানায় যাই। চোখের সামনে সব পাল্টে যেতে দেখলাম।

আমাদের সময়ও দেখেছি লাল সুটকেস
ওয়ালারা ঢাবি তে বুয়েটে ক’দিন সমাজতন্ত্র সমাজতন্ত্র খেলে দে ছুট।
আজ এরা বেশ আছে। মসনদের আশে
পাশে চূহা বিল্লি’র বেশে। যাকগে……………
আমলা কামলার সৃষ্টি ওখান থেকে। কে বলে ৮০-৯০ এ আমরা ছিলাম টই টুম্বুর!
মিথ্যা। মাকাল ফল দর্শনীয় তবে সেটি মাকাল ফলই। ঈমান দূর্বল – অন্তঃসার শূন্য
এজেন্ট বদমাশ সংখ্যা লঘু দূর্বল চিও সংঘ বিশেষ দলের গোপন ভোটার। চূহা-বিল্লিরা একটা ধাক্কায় পগার পার। ফলাফল
৭৭ঃ ০৭

এতো কিছুর পরেও আমাদের সহজ পাঠ
শেখা আতুরঘর — ছাত্র ইউনিয়ন আজ-ও
অপ্রতিরোধ্য মানুষ গড়ার কারখানায়। কত খ্যাত কুখ্যাত কত শিল্পী সাহিত্যিক বুদ্ধিজীবি -চলচিত্রকার -নাট্যকার প্রযোজক- পরিচালক নেতা- নত্রী সৃষ্টি করেছে তার ইয়াত্তা নেই। সমস্যা হলো অন্য জায়গায় আমরা স্টেজ বানাই অন্যেরা নাঁচে।
এ-ই আমরাই আবার দলবেঁধে গাই “ডিম পাড়ে হাসে খায় বাঘ ঢাসে “।
একটু ভালোমন্দ পুষ্টিকর খাবার। পথ্য পানি। নেতা কর্মী ধরে রাখার বাঙালি মন্ত্র নুতন নুতন দৃষ্টি নন্দন সহজবোধ্য কাজে কর্মে ফেরানো গেলে সাফল্য আবারও অনিবার্য।

দেখুন না……………………
আমরা চর্চায় ছিলাম বলেই
দেয়াল লিখতে গিয়ে লিখে ফেললাম
“ক্ষমতা দখলের হাতিয়ার নই,
এসো দিন বদলের যোদ্ধা হই”।
এখান থেকে
দিন বদলের কথা টিক
বাংলা লিংক নিয়েছে…….সাফল্য এসেছে।
মমতা বামদের হটাতে
দিন বদল করতে চায়
ব্যাবহার করেছে……সাফল্য এসেছে।
আওয়ামিলীগ
‘দিন বদলের ইশতেহার’ করেছে
সাফল্য এসেছে।
আমারা_আমাদের বা মরা আতিকের
কিচ্ছুটি হয় নি কো !! ??
তবে এটি এখনো সত্যি আমরাই পারি।
কচু পাতা কলা পাতা মিছিল শিক্ষা ঘনিষ্ঠ আন্দোলনে ছাত্র রাজনীতিতে নুতন প্রান সন্চার করে। এটিও আমরাই করেছি।
ভবিষ্যতেও করবো। এখনো আমাদের দ্বারাই সম্ভব।

সৎ মায়ের সন্তান হোক, রক্তের আপন ভাই বোন না হোক, আত্মার আত্নীয় যেনো হই সবাই। জানা বোঝা আর বেড়ে ওঠার গাঁথুনী হোক মজবুত ইস্পাত-দৃঢ়। এভাবে আত্নার আত্মীয়তা পরিবর্তনের দৃঢ় সংকল্প
না থাকলে, না ভাবলে, অবস্হা বদলাবে না।
যা পড়ি, যা বলি, করি যেনো দৃঢ় পণে।
এই বিশ্বাসে এক ইঞ্চি ফাঁক রাখা চলবে না।

আমরা অনেকেই তো বড় বড় প্রতিষ্ঠান চালাই উন্নতি ও হয় সেখানে।
শুধু আমার প্রথম ভালোবাসা ফুলে
ফলে ভরে ওঠেনা! কেনো?
উপযুক্ত জানা বোঝা চাষা চাষীর যত্নে অবহেলা সঠিক পরিচর্যা আর পেশাদারিত্ব না থাকার কারনে।

আমার প্রথম প্রেম
বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন
আমি তোমায় ভালোবাসি।

বার বার তোমার কাছেই ফিরি
দেখে বিশ্ব স্বদেশের
শ্রী-হীন ছিঁড়ি ।
………………………………………………………
আপনাদের বিনীত অনুরোধ
ছাত্র ইউনিয়নের এ-ই ফন্টটাই আমাদের
নানা ঘটনা ইতিহাসের স্বাক্ষী এটি আমাদের
নানা আবেগের উচ্ছ্বাসের সাথে জড়িয়ে আছে। আজ থেকে এটি ব্যাবহার শুরু করলে খুশি হবো ।।
………………………………………………………
লেখক :আতিকুল হক খান
২৬ এপ্রিল ২০২১

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020
Design & Developed by : JM IT SOLUTION